মঙ্গলে যাচ্ছেন ১ লক্ষ ভারতীয় নাগরিক!

আপনার কাছে কল্পবিজ্ঞানের গল্প মনে হলেও এটাই কিন্তু বাস্তব যে,  প্রায় এক লক্ষ ভারতীয় ইতিমধ্যে ‘মঙ্গলে গ্রহে’ যাওয়ার টিকিট কেটে ফেলেছেন। এই টিকিট বিলি করছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘নাসা’।

নাসা জানিয়েছে, যাঁরা টিকিট কেটেছেন তাদের ‘ইনসাইট’ অভিযানে মঙ্গলে নিয়ে যাওয়া হবে। চমকে উঠছেন? হয়ত ভাবছেন এতটা এগিয়ে গিয়েছে প্রযুক্তি! তবে এখানে একটু টুইস্ট রয়েছে। এখনই সশরীরে যাত্রীদের মঙ্গলে পাঠাচ্ছে না নাসা। পরিবর্তে ওই গ্রহে পৌঁছে যাবে তাঁদের নাম। যে সমস্ত যাত্রীরা টিকিট কেটেছেন, তাঁদের নাম লিখে দেওয়া হবে ‘ইনসাইট’ মার্স ল্যান্ডারের গায়ে। বুধবার এক বিবৃতিতে নাসা জানায়, ইতিমধ্যে প্রায় ১ লক্ষ ৩৮ হাজার ভারতীয় ওই টিকিট কিনেছেন। তবে সব থেকে বেশি টিকিট কিনেছেন মার্কিন নাগরিকরা। ওই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চীন। তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত।

সব মিলিয়ে প্রায় ২৪ লক্ষ নাম জমা পড়েছে নাসার কাছে। এখন টিকিট বিলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যাত্রীদের অনলাইন ‘বোর্ডিং পাস’ দেওয়া হবে।

২০১৮ সালের ৫ মে মঙ্গল গ্রহের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিতে চলেছে নাসার ‘ইনসাইট’ নামের ‘মার্স ল্যান্ডার’। ওই বছরই ২৬ নভেম্বর মঙ্গল অবতরণ করবে ওই যান। প্রায় ৭২০ দিনের অভিযানে মঙ্গলের ভূপৃষ্ঠে নানা বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাবে ‘ইনসাইট’। বিশেষ করে ওই গ্রহে হওয়া ভূমিকম্পের তথ্য সংগ্রহ করে পৃথিবীতে পাঠাবে মার্স ল্যান্ডার। ইতিমধ্যে নাসার এই অভিযান সাড়া ফেলে দিয়েছে। ‘মঙ্গলায়ন’ অভিযানে ভারতের সাফল্য মঙ্গল গ্রহের প্রতি ভারতীয়দের আগ্রহ বাড়িয়ে তুলেছে বলেই মনে করছেন অনেকে। সংবাদ প্রতিদিন।
//pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

চট্টগ্রামে তিন দিনব্যাপী আইটি মেলা শনিবার শুরু

চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এবং সোসাইটি অফ চিটাগাং আইটি প্রফেশনালস এর যৌথ উদ্যোগে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হবে তিন দিনব্যাপী আইটি মেলা।
শনিবার থেকে নগরের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে অনুষ্ঠিতব্য মেলা প্রতিদিন চলবে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ সব তথ্য জানান চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চেম্বারের সহসভাপতি ও মেলা আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক সৈয়দ জামাল, চেম্বার পরিচালক এম এ মোতালেব, অহীদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন), চেম্বারের সাবেক পরিচালক মাহফুজুল হক শাহ, নকিয়ার রিজিওনাল বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার মো. মোজাম্মেল, স্মার্ট টেকনোলজির রিজিওনাল হেড কাজী রাসেল প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, শনিবার সকাল ১১টায় মেলার উদ্বোধন করবেন বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান। সবার জন্য উন্মুক্ত থাকা এ মেলায় অংশ নিবে দেশের স্বনামধন্য ২৬টি প্রতিষ্ঠানের ৫০টি স্টল। এছাড়া ভারতের দিল্লির একটি নামকরা প্রতিষ্ঠানও মেলায় অংশ নিচ্ছে। মেলার গোল্ড স্পন্সর হিসেবে নকিয়া ও স্মার্ট টেকনোলজির (বিডি) স্টল থাকছে। টেকনোলজি পার্টনার হিসেবে থাকছে লিংক থ্রি, সাইবার পার্টনার সফোজ এবং ফুড পার্টনার হিসেবে থাকছে বনফুল।

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ছুরিকাঘাতে আহত ২

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ছুরিকাঘাতে চা দোকানদারসহ দু’জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। আহতরা হলেন চা বিক্রেতা রুবেল হোসেন (৩৫) ও হকার সোবাহান মিয়া (৪০)।

আহত  রুবেলের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শুক্রবার রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। আহত রুবেলের পেটে ও মাথায় এবং সোবাহানের পেটে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ (এসআই) বাচ্চু মিয়া জানান, রাসেল নামে এক ব্যক্তি আহত দুই জনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসে। তবে বিস্তারিত কোনো তথ্য জানাতে পারেননি রাসেল। বিষয়টি নিউমার্কেট থানায় জানানো হয়েছে।

‘সৌদির রাজ পরিবারকে যতটা ভদ্র মনে করা হয়, বাস্তবতা উল্টো’

সৌদি আরবের রাজ পরিবারের সদস্যরা এখন নানান অপরাধ কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছেন। এতদিন না থাকলেও বর্তমানে সৌদি আরবের রাজ পরিবারে ক্ষমতার দ্বন্দ্ব অনেকটা প্রকাশ্যে চলে এসেছে।

ব্যবসায়ী বিলিনিয়র আলওয়ালিদ বিন তালালসহ ১১ যুবরাজ, চার মন্ত্রী এবং সাবেক আরও ১০ মন্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনার পরপর ইয়েমেন সীমান্তের কাছে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে নিহত হয়েছেন এক যুবরাজ।

এ ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে বোমা ফাটিয়েছেন দুর্নীতির দায়ে সম্প্রতি আটক হওয়া সৌদি যুবরাজ আল ওয়ালিদ বিন তালালের স্ত্রী আমিরা বিনতে আইডেন বিন নায়েফ। জানিয়েছেন, সৌদির রাজ পরিবারকে বাইরে থেকে যতটা ভদ্র ও ধর্মভীরু বলে মনে হয়, বাস্তবতা সম্পূর্ণ উল্টো। এক কথায় বলতে গেলে এহেন কোনো অপকর্ম নেই যা তারা করেন না।

আমিরা জানান, জেদ্দা শহরকে এরা দাস বাজারে পরিণত করেছেন। সেখানে অল্প বয়সী নারী বিক্রি থেকে শুরু করে মদ, সেক্স পার্টির মতো সব রকম ব্যভিচারই হয়ে থাকে। পুলিশ এসবের ব্যাপারে অবহিত থাকলেও শুধুমাত্র চাকরি হারানোর ভয়ে কোনো উদ্যোগ নেয় না। কেননা, শহরের সব অপরাধের পেছনে সৌদি রাজ পরিবারের সদস্যরা প্রত্যক্ষভাবে জড়িত।

সম্প্রতি হেলোউইন পার্টির উদাহরণ তুলে আমিরা বলেন, সেই পার্টিতে সর্বসাকুল্যে দেড়শ’ মানুষ জড়ো হয়েছিলেন।
যাদের ভেতরে কূটনৈতিক কর্মকর্তারাও ছিলেন। সেখানে সেদিন যা হয়েছে তা বাইরের দেশের কোনো নাইট ক্লাবের থেকে আলাদা ছিল না। সৌদি আরবে মদ নিষিদ্ধ হলেও সেই পার্টিতে তরল পদার্থটির বন্যা বয়ে গিয়েছিল। সেই ডিজে পার্টিতে ওয়াইন, জুটিদের নাচ, নানান ধরনের পোশাক পরা সবই হয়েছিল।

সৌদি আরবে দাসপ্রথা এখনও রয়েছে জানিয়ে আমিরা বলেন, রাজপরিবারের কিছু সুবিধাভোগী ব্যক্তি সেখানে দাস বিক্রি করে থাকেন। আর এসব দাস বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আনা হয় শ্রীলংকা, বাংলাদেশ, ফিলিপাইন, সোমালিয়া, নাইজেরিয়া, রোমানিয়া এবং বুলগেরিয়া থেকে। যেসব শিশুকে এখানে বিক্রি করা হয় তারা কখনই মালিকের ইচ্ছার বিরুদ্ধে কোথাও যেতে পারে না। এমনকি এশিয়ার দাসীরা প্রায় ক্ষেত্রেই নিজেদের বন্দি বলেই মনে করেন। তাদের উপর যৌন নিপীড়ন চালানো হয়।

উল্লেখ্য, আমিরা তালালের সাবেক স্ত্রী, যুবরাজের কর্মকাণ্ডের কারণে আগেই সম্পর্ক ত্যাগ করেছেন।

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীনartic

My New Post

নিয়তিই যেন ঠিক করে রেখেছে, পরীক্ষার হলে অামার সিট একেবারে সামনেই পড়বে!
হাইস্কুলে ১ রোল থাকায় একেবার সামনের সিটটা অামার জন্যই বরাদ্দ ছিল বলা যায়। এইচ.এস.সি.তে অামার সিট পড়েছিল ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যন্ড কলেজের বিশাল হলরুমের মাঝখানের সারির একেবার সামনে! অামার সামনেই দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের চেয়ার-টেবিল। ভেবে দেখুন- একটি রুমে ৪০০/৫০০ পরীক্ষার্থী, তার মধ্যেও! ভার্সিটিতেও ৮ সেমিস্টারের যে ৭ ♠ সেমিস্টারের পরীক্ষা দিয়েছি, তাতেও প্রায় সময়ই সামনের সিটটা অামার দখলেই ছিল বলা যায়! মাস্টার্সে নতুন রোল পেয়ে ভাবলাম, এবার বুঝি ভাগ্যটা বদলাবে। সেদিন বন্ধুদের সাথে এ নিয়ে অালাপও করলাম। অাজ পরীক্ষার হলে ঢুকে অামার অাগের রোলের পেছনে গিয়ে দেখি তারপরে অারও ৫/৭ টা চেয়ার থাকা সত্ত্বেও অামার রোলের ছাপ্পি নাই। বুঝে গেলাম-অাজও সিটটা.. Continue reading “My New Post”